ঈদের সকালের স্নিগ্ধ সাজ

 

ঈদ উল আজহা মানেই ব্যস্ততার ঈদ। কোরবানি ঈদের সকালটা বেশ কর্মব্যস্ত কাটে। মেয়েদের কাজ শুরু হয় একদম সকাল থেকেই। নাস্তা তৈরী করা, সারাদিন রান্নাঘরের কাজ করা, মাংস কাটা বা গুছিয়ে রাখা সব মিলিয়ে কখন যে সময় চলে যায় বোঝাই যায়না। তাই বলে ঈদের সকালে একটু সাজা যাবেনা তা নয় কিন্তু। তবে গরমে ভারী সাজ এড়িয়ে চলা ভালো। তাই ঈদের সকালে হালকা সাজ বাছাই করে নিন  এতে করে আপনাকে দেখতে লাগবে সতেজ এবং স্নিগ্ধ। চলুন তাহলে দেখে নেই কেমন হবে ঈদের সকালের সাজ। 

পোশাক: এই গরমে ঈদের সকালে সুতি কিংবা লিলেন কাপড়ের পোশাকই হবে সবচেয়ে আরামদায়ক। এছাড়া কোরবানির ঈদে প্রচুর কাজ থাকে তাই হালকা ঢিলেঢালা কাপড়েই কাজ করতে সুবিধা হবে। তাই ঈদের পোশাকগুলোর মধ্যে সুতি পোশাকটি বেছে নিন স্নিগ্ধ সকালের জন্য।

মেকআপ: ঈদের সকালের সাজ হওয়া চাই সিম্পল এবং স্নিগ্ধ। বিবি ক্রিম কিংবা ফেসপাউডার দিয়েই বেইজ মেকআপ করে নিতে পারেন। একটু ব্লাশ লাগিয়ে নিন। চোখে হালকা রঙের আইশ্যাডোর ব্যবহার করতে পারেন। চোখে হালকা কাজল এবং চোখের উপরে চিকন করে আইলাইনার দিয়ে মাসকারা দিয়ে নিন। সবশেষে ঠোঁটে লাগিয়ে নিন ন্যুড লিপস্টিক। 

চুল: ঈদের সকালে থাকে রান্নাঘরের কাজ তার উপর বেশ গরম আবহাওয়া। তাই সকালে চুল বেঁধে রাখাই হবে উত্তম। তাই চুলগুলোকে উঁচু করে বান করে রাখতে পারেন কিংবা পনি টেল করতে পারেন। এতে কাজের ক্ষেত্রে সুবিধা হবে পাশাপাশি দেখতেও বেশ স্মার্ট লাগবে।  

গহনা: সকাল বেলায় হালকা সাজের সাথে হালকা কিছু গহনা পরলেই মানানসই লাগে। কানে ছোট দুল, গলায় সিম্পল মুক্তার মালা বা চেইন, হাতে চুড়ি কিংবা ব্রেসলেট আর আংটি পড়তে পারেন। ভারী কোনো গহনা না পরে শ্রেয়।

আশা করছি এই গরমে ঈদের সকালে হালকা এবং সিম্পল এই লুকে আপনাদের বেশ মানাবে।  এতে করে উপরোক্ত কিছু টিপস ফলো করে আপনিও পেতে পারেন যা হবে আরামদায়ক এবং স্নিগ্ধ পাশাপাশি আপনার সুন্দর ব্যক্তিত্বকেও ফুটিয়ে তুলবে বহুগুনে।