এক্সফোলিয়েটিং  এসিডস

এক্সফোলিয়েটিং এসিডস

 সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারলে এক্সফোলিয়েটিং  এসিডস খুব দ্রুত চেহারার উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনে। আমরা সবাই জানি আমাদের ত্বকের জন্য সঠিক পণ্য ব্যবহার করা উচিত তাই ভুল পণ্য বা অতিরিক্ত পরিমাণে মিশালে এসিড অনেক ক্ষতি করতে পারে।

এক্সফোলিয়েটিং এসিডস আসলে কি এবং কিভাবে কাজ করে?

ফিজিক্যাল এক্সফোলিয়ান্টস এসিড এ থাকে কেমিক্যাল এসিড যা ত্বকের জন্য বিভিন্ন ক্ষতিকর জিনিস যেমন তেল বা ধুলাবালি কে আলাদা করে। ফিজিক্যাল এক্সফোলিয়ান্টস এসিড ত্বকের তেল বা ধুলাবালি পরিষ্কারের পাশাপাশি অন্যান্য প্রসাধনী শোষণ করতে ত্বককে সাহায্য করে।

এক্সফোলিয়েটিং এসিডস এর ৩ টি শ্রেণী হচ্ছে-

১. AHA (Alpha Hydroxy Acid)

২. BHA (Beta Hydroxy Acid)

৩. PHA (Polyhydroxy Acid)

 

AHA (Alpha Hydroxy Acid): AHA ত্বকের একদম উপরের স্তরে কাজ করে। আমাদের ত্বক এ এক ধরণের আঠালো পদার্থ থাকে যা ত্বকের মৃত কোষগুলো একসাথে আটকে রাখে। AHA মূলত এই আঠালো পদার্থ গুলো ভাঙতে সাহায্য করে।

PHA (Polyhydroxy Acid): PHA ও AHA এর মতই কাজ করে এবং আমাদের ত্বকের উপরের ধুলাবালি পরিষ্কার করে। কিন্তু PHA এর মলিকিউল আকারে একটু বড় হয় তাই ত্বককে ভেদ করে কাজ শুরু করতে একটু বেশি সময় লাগে যা সেনসিটিভ ত্বকের জন্য খুব এ উপকারি।

সবশেষে রয়েছে BHA (Beta Hydroxy Acid) যা AHA এবং PHA থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। BHA তেলে দ্রবণীয় যা পোরস কে দূর করে এবং যেকোনো ধরনের তেল বা সিবাম এর স্তর কে ভেঙ্গে ফেলে।
 

আপনারও কি ত্বকের উপরিভাগ ফ্যাকাশে বা পোরস এ গভীর জমাট বেধে আছে?

আমরা সবাই জানি যে, যেকোনো প্রসাধনী আমাদের ত্বকে ততটুকুই ব্যবহার করা উচিত যতটুকু আমাদের ত্বকের জন্য প্রয়োজন। বিশেষ করে বিভিন্ন উপাদান যেমন এক্সফোলিয়েটিং এসিডস ব্যবহার করার সময় এটা খুব ভালভাবে মাথায় রাখা উচিত। যদি আপনার ত্বক শুষ্ক আর সেনসিটিভ হয়ে থাকে তাহলে অল্প করে শুরু করুন এবং শুধু PHA ই ব্যবহার করুন। PHA এর মলিকিউল আকারে বড় হয় এবং ত্বককে ভেদ করে কাজ শুরু করতে একটু বেশি সময় লাগে যা সংবেদনশীল ত্বকের জন্য খুব এ উপকারি।
 

PHA ও AHA এর মতই কার্যকরী, কিন্তু একই ফলাফল পেতে একটু বেশি সময় লাগে। তাই আপনি PHA IN OVERNIGHT MASKS ব্যবহার করতে পারেন। আর যদি একনে বা অন্য সমস্যা থেকে থাকে তাহলে BHA ও AHA একসাথে মিলিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।

প্রথমে AHA ক্লিঞ্জার দিয়ে ত্বক এক্সফোলিয়েট করুন। তারপর টার্গেটেড ট্রিটমেন্ট এর জন্য BHA টোনার যোগ করুন।

যদি আপনার টেক্সার বা অন্য সমস্যা থেকে থাকে তাহলে আপনার রুটিন এ AHA যোগ করুন। এক্সফোলিয়েটিং ক্লিঞ্জার ব্যাবহারের পর যে সিরামে এক্সফোলিয়েটিং উপাদান থাকে ঐ সিরাম ব্যবহার করুন।

যদি আপনি এসিড এ নতুন হয়ে থাকেন তাহলে PM স্কিনকেয়ার রুটিন এ এটা ব্যবহার করুন এবং খেয়াল রাখুন আপনার ত্বকে কোন সমস্যা হয় কিনা। যদি এটা আপনার ত্বকের জন্য খুব বেশি হয়ে যায় তাহলে ঠিক করার জন্য কোমল উপাদান ব্যবহার করুন।

লেইং এর সময় সবচাইতে ভাল পদ্ধতি হচ্ছে হাল্কা থেকে ঘন টেক্সার ব্যবহার করা। এটা হাল্কা ফর্মুলা কে ত্বকে ভালভাবে মিশতে সাহায্য করে। তাছাড়াও আপনার ত্বকের ময়েশ্চার এর দিকেও খেয়াল রাখুন কারণ এসিড ত্বককে শুষ্ক করে ফেলতে পারে।

অতিরিক্ত এক্সফোলিয়েশন দূর করতে প্রচুর ময়েশ্চার ও হাইড্রেটিং পণ্য ব্যবহার করুন।

সবশেষে, প্রতিদিন মনে করে Broad Spectrum SPF ব্যবহার করুন। কারণ আপনি অবশ্যই চাইবেননা সূর্য বা অন্যান্য ক্ষতিকর উপাদান আপনার নতুন ত্বকের ক্ষতি না করুক |

Leave A Reply
VIP Privileges