গরম পানি খাওয়ার স্বাস্থ্য উপকারিতা

গরম পানি খাওয়ার স্বাস্থ্য উপকারিতা

বিশুদ্ধ পানির অপর নাম জীবন তা আমরা সবাই জানি। সুস্থ থাকতে প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করা প্রয়োজন। তবে ঠাণ্ডা পানি না খেয়ে প্রতিদিন ১-২ গ্লাস কুসুম গরম পানি পান করা সাস্থের জন্য বেশ উপকারী।

চলুন জেনে নেই কুসুম গরম পানি পান করার কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে –

হজম শক্তি বৃদ্ধি করে

গরম পানি হজম শক্তিকে বৃদ্ধি করে। আপনি যদি দীর্ঘদিন ধরে হজমের সমস্যায় ভুগে থাকেন তবে কুসুম গরম পানি খেতে পারেন । কুসুম গরম পানি খেলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যাও দূর হয়। এছাড়াও একাধিক স্বাস্থ্য সমস্যার সহজ সমাধান হল কয়েক গ্লাস কুসুম গরম পানি। রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস কুসুম গরম পানি পান করুন।

ওজন কমাতে সাহায্য করে

গরম পানি শরীরের অতিরিক্ত ফ্যাট দ্রুত ঝরাতে সাহায্য করে। সকালবেলা খালি পেটে গরম পানি খুবই উপকারি। এছাড়া গরম পানি খেতে ক্ষুধাও কম লাগে ফলে 'ক্যালরি ইনটেক' কম হয়, যা দ্রুত ওজন কমাতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন সকালে খালিপেটে এক গ্লাস গরম পানিতে লেবু বা মধু মিশিয়ে পান করুন।

ডিটক্স

গরম পানি শরীরের থেকে সমস্ত ক্ষতিকারক টক্সিনকে বের করে শরীরকে ডিটক্স করে। প্রতিদিন সকালে খালি পেটে গরম পানি খেলে শরীরের টক্সিক উপাদানগুলি সহজেই বাইরে বেরিয়ে যাবে ও শরীরের তাপমাত্রা বাড়বে।

রক্ত সঞ্চালন ঠিক রাখতে

গরম পানি শরীরের ব্লাড ভেসেলস্ সক্রিয় রাখতে সাহায্য করে। ফলে প্রতিটি নার্ভ সচল থাকে, যা শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

 

 

 

অনিয়মিত পিরিয়ড ও ব্যথা থেকে মুক্তি দেয়

পিরিয়ডের সময়ে মেনস্ট্রয়াল ক্র্যাম্পের প্রভাব কমাতে গরম পানি খুবই উপকারি। এর ফলে অ্যাবডোমিনাল মাসলের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায় ফলে ব্যাথাও দ্রুত কমে যায়। এছাড়া গরম পানি অনিয়মিত ঋতুস্রাব ঠিক করতেও সাহায্য করে।

ব্যথা থেকে মুক্তি দিতে

গরম পানি পান করলে রক্ত সঞ্চালন ভালোভাবে হয় বলে এটি শরীরের প্রতিটি স্নায়ুকে সচল রাখতে সাহায্য করে, যা শরীরের বিভিন্ন ব্যথা থেকে মুক্তি দেয়। দীর্ঘদিন ধরে যারা বাতের ব্যথায় ভুগছেন তারা গরম পানি খেতে পারেন ।

ত্বকের যত্নে

গরম পানি খেলে শরীরের ভেতর নানান ধরণের পরিবর্তন হতে শুরু করে। ফলে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করার পাশাপাশি ত্বককে করে তুলে উজ্জ্বল এবং স্বাস্থ্যবান। এছাড়াও ত্বকের ব্রন বা বিভিন্ন দাগও দূর করতে সাহায্য করে গরম পানি।

চুলের যত্নে

চুলের যত্নেও গরম পানি বেশ কার্যকরী। গরম পানি স্ক্যাল্পের ময়েশ্চার ফিরিয়ে আনে এবং খুশকি কমাতে সাহায্য করে। এছাড়া গরম পানি খেলে চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি চুল পরাও অনেক কমে আসে।

 

এছাড়াও স্ট্রেস কমাতে, চেহারায় তারুণ্য ধরে রাখতে, ঠাণ্ডা থেকে দূরে থাকতে এবং অ্যাসিডিটি দূর করতেও গরম পানির জুড়ি নেই।

 

Leave A Reply
VIP Privileges