ভিটামিন সি

ভিটামিন সি

আজকে আমরা এমন একটি উপাদান জানবো তা হচ্ছে “ভিটামিন সি”। আমরা সবাই জানি ভিটামিন সি আমাদের ত্বক কে উজ্জ্বল করে। তা ছাড়া বেশিরভাগ মানুষের যেটা  অজানা তা হচ্ছে যে, ভিটামিন সি কোলাজেন কে ত্বরান্বিত করে। আমাদের বয়স যখন ২০ বা এর বেশি হতে থাকে তখন আমাদের শরীর ধীরে ধীরে কোলাজেন উৎপাদন কমিয়ে দেয়। যার ফলে ত্বকে বয়সের ছাপ পড়ে।

এই সমস্যা সমাধানের সর্বোত্তম পদ্ধতি হচ্ছে ভিটামিন সি। কারণ ভিটামিন সি কোলাজেন উৎপাদন করতে সাহায্য করে এবং ফিব্রব্লাস্ট কে ত্বরান্বিত করে।

 

ফিব্রব্লাস্ট কি?

ফিব্রব্লাস্ট হচ্ছে এক ধরনের কোষ যা আমাদের শরীরে থাকে এবং কোলাজেন উৎপাদন করতে সাহায্য করে।

ভিটামিন সি আমাদের শরীর কে মেলালিন উৎপাদন থেকে বিরত রাখে এবং মেলানোসাইট কে নষ্ট করে। মেলানসাইট এর জন্যই আমাদের পিগমেন্টেশন দেখা দিয়ে থাকে। যেমন-হাইপারপিগমেন্টেশন, ডার্ক স্পট যা আমাদের অপছন্দ তা হয়ে থাকে অতিরিক্ত মেলালিন থেকে।

ভিটামিন সি মূলত আমাদের ত্বকের এপিডারমিস ও ডারমিস লেয়ার এ পাওয়া যায়।

কিন্তু আমাদের বয়স বাড়ার সাথে সাথে ভিটামিন সি এর লেভেল ও কমে যেতে থাকে যার ফলে দেখা দেয় হাইপারপিগমেন্টেশন, ফাইনলাইন এবং অন্যান্য লক্ষণ। ভিটামিন সি আমাদের ত্বকের অনেক গভীরে প্রবেশ করে এবং ত্বকে বয়সের ছাপ পড়া রোধ করে।

ভিটামিন সি এবং ভিটামিন ই একসাথে খুব ই ভালো কাজ করে। এই দুটি ভিটামিন একসাথে ত্বক কে হাইড্রেট রাখে এবং সুরক্ষিত রাখে।

আপনারা চাইলে ভিটামিন সি এর সাথে অন্য অ্যাক্টিভ উপাদান যেমন রেটিনল, AHA, BHA একসাথে ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু এক্ষেত্রে আপনাকে একটু সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে, যেমন আপনি যদি AHA এবং ভিটামিন সি একসাথে ব্যবহার করতে চান তাহলে রাতে AHA এবং দিনে ভিটামিন সি ব্যবহার করুন।

যে প্রশ্নটি সাধারণত সব জায়গায় দেখা যায় তা হচ্ছে “আমরা কি রেটিনল এবং ভিটামিন সি একসাথে ব্যবহার করতে পারব?”

উত্তর হচ্ছে, অবশ্যই পারব। কারণ ভিটামিন সি হচ্ছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রেটিনল এর সাথে অনেক ভাল কাজ করে। কিন্তু আমরা বেনজোয়েল পেরোক্সাইড ব্যবহার করতে পরামর্শ দেইনা। বেনজোয়েল পেরোক্সাইড যদিও অ্যাকনে এর জন্য অনেক ভাল কিন্তু একসাথে ব্যবহার করলে ত্বককে অক্সাইড করে ফেলতে পারে।
 

কখন ভিটামিন সি ব্যবহার করতে পারবেন?

যেহেতু ভিটামিন পানি তে দ্রবণীয় তাই আপনি চাইলে ভিটামিন সি সিরাম হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন।

প্রথমত ক্লিঞ্জার ব্যবহার করুন এবং পরে টোনার ব্যবহার করুন। এবার পরবর্তী ধাপে যাওয়ার আগে অবশ্যই দেখতে হবে সবকিছু আপনার ত্বক শোষণ করছে কিনা। তারপর ভিটামিন সি এবং পরে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

তবে, অতিরিক্ত ভিটামিন সি আপনার ত্বক এ ব্যবহার করা ঠিক হবে না। সবচাইতে ভাল হবে যদি আপনি ২০% বা তার কম পরিমান ভিটামিন সি ব্যবহার করেন।

Leave A Reply
VIP Privileges